রবিবার, নভেম্বর 29, 2020
Home খেলো ইন্ডিয়া চম্পাহাটির পুকুর থেকে খেলো ইন্ডিয়ায় পাঁচটি সোনা, স্বদেশের স্বপ্ন আন্তর্জাতিক পদক

চম্পাহাটির পুকুর থেকে খেলো ইন্ডিয়ায় পাঁচটি সোনা, স্বদেশের স্বপ্ন আন্তর্জাতিক পদক

স্বদেশের কাছে এখনও পর্যন্ত স্মরণীয় পারফরম্যান্স ২০১৭ সালে এশিয়ান এজ গ্রুপ সাঁতারে তিনটি ব্রোঞ্জ ও একটি রূপো জেতা। গুয়াহাটিতে পাঁচটি সোনাজয়ের পর স্বদেশের মন্তব্য, ‘‘এবার আমার লক্ষ্য আন্তর্জাতিক পদক। আমি জানি খুব কঠিন। তবু, হাল ছাড়লে চলবে না।’’

স্বদেশ মণ্ডল। বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগণার চম্পাহাটিতে। পাড়ার পুকুরে শুরু তার সাঁতার। বাবার একটা ছাতা সারানোর দোকান রয়েছে। মা-কেও কাজ করতে হয় সংসার চালানোর জন্য। পাঁচ বছর আগে গ্লেনমার্ক –সাই সাঁতার অ্যাকাডেমির প্রশিক্ষকরা বাংলার কয়েকটা গ্রামে এসেছিলেন প্রতিভাবান সাঁতারুর খোঁজে। তাদের অ্যাকাডেমিতে নিয়ে যাবেন বলে। চম্পাহাটিতে পাড়ার পুকুরেই হয়েছিল সেই প্রতিভাবান সাঁতারু খোঁজার কাজ। স্বদেশের দু’হাত টানা দেখে প্রশিক্ষকদের তাকে অ্যাকাডেমির জন্য বাছতে দেরি হয়নি। স্বদেশের জীবন তারপর থেকেই বদলে যায়। সম্প্রতি গুয়াহাটিতে হওয়া খেলো ইন্ডিয়া ইভেন্টে পাঁচটি সোনা জিতেছে ১৫ বছরের স্বদেশ। তার মধ্যে দু’টো ইভেন্টে জাতীয় রেকর্ডও তৈরি করেছে সে।

স্বদেশের কাছে এখনও পর্যন্ত স্মরণীয় পারফরম্যান্স ২০১৭ সালে এশিয়ান এজ গ্রুপ সাঁতারে তিনটি ব্রোঞ্জ ও একটি রূপো জেতা। গুয়াহাটিতে পাঁচটি সোনাজয়ের পর স্বদেশের মন্তব্য, ‘‘এবার আমার লক্ষ্য আন্তর্জাতিক পদক। আমি জানি খুব কঠিন। তবু, হাল ছাড়লে চলবে না।’’

কীভাবে প্রস্তুতি নেয় স্বদেশ? ইংল্যান্ডের কিংবদন্তি সাঁতারু অ্যাডাম পিটি তার আদর্শ সাঁতারু। প্র্যাক্টিসের বাইরে তার কাজ ইউ টিউবে পিটির সাঁতার আর ট্রেনিং দেখা। আর দেশের সাঁতারুদের মধ্যে স্বদেশের প্রিয় সঞ্জীব সেজওয়াল। স্বদেশ বলছে, ‘‘নিজের প্র্যাক্টিসের সময় পিটি-র ট্রেনিং দেখে দেখে শেখা টেকনিকগুলোকে প্রয়োগ করার চেষ্টা করি। আর সম্প্রতি সঞ্জীবদার সঙ্গে একবার দেখা হয়েছিল দিল্লিতে। সেখানে ওর দেওয়া পরামর্শগুলো খুব কাজে লাগছে।’’ আপাতত, স্বদেশের সামনে জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ। গত বছর পারফরম্যান্স নজরকাড়া ছিল না। এবার স্বদেশের লক্ষ্য জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে নজরকাড়ার মতো পারফরম্যান্স করা।

খেলো ইন্ডিয়ার সাঁতারে বাংলার আর এক তারকা সাঁতারু সৌভৃতি মণ্ডল। সালকিয়ার এই মেয়েও খেলো ইন্ডিয়ায় পাঁচটি সোনা জিতেছে। আশ্চর্যের বিষয় সৌভৃতিও গ্লেনমার্ক –সাই অ্যাকাডেমির ছাত্রী। সালকিয়ার সুইমিং পুলে তার সাঁতার শেখার শুরু। ১৮ বছরের সৌভৃতির সামনের মাসে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। তাই এখন তার সমস্ত মনোযোগ পরীক্ষার দিকে। তারপর সে-ও শুরু করবে জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপের প্রস্তুতি অ্যাকাডেমিতে। গত বছরই এশিয়ান এজ গ্রুপে দু’টো ব্রোঞ্জ পেয়েছিল সে।