মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 1, 2020
Home ফুটবল ক্লাব ফুটবলে বিদেশি না কমালে সুনীলের উত্তরসূরী পাওয়া যাবে নাঃ স্টিমাচ

ক্লাব ফুটবলে বিদেশি না কমালে সুনীলের উত্তরসূরী পাওয়া যাবে নাঃ স্টিমাচ

ক্লাব ফুটবলে বিদেশির সংখ্যা না কমালে সুনীল ছেত্রীর উত্তরসূরি তুলে আনা যাবে না। ধারণা ভারতীয় ফুটবল দলের কোচ ইগর স্তিমাচের।
শুক্রবার মুম্বইয়ের কুপারেজ স্টেডিয়ামে ইন্ডিয়ান অ্যারোজের ফুটবলারদের বিশেষ অনুশীলন করান তিনি। পরে সাংবাদিকদের উদ্বিগ্ন ইগর বলেছেন, ‘‘আমি মনে করি, দেশের সর্বোচ্চ লিগে এএফসির নিয়ম অনুসরণ করা উচিত। চার বিদেশির মধ্যে অন্তত এক জন এশিয়ার কোনও দেশের হতেই হবে। এই নিয়ম অনুসরণ করেই এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলো ফুটবলে উন্নতি করেছে।’’ স্টিমাচের আক্ষেপ, ক্লাব ফুটবলে ইন্ডিয়ান অ্যারোজ ছাড়া আর কোনও দলে দেশের স্ট্রাইকার খেলানো হয় না। বলেছেন, “সেক্ষেত্রে আইএসএল থেকে কীভাবে জাতীয় দলে স্ট্রাইকার নেব?অথচ, আইএসএল দেশের অন্যতম লিগ।”
এই মুহূর্তে আইএসএল ও আই লিগের ক্লাবগুলো একসঙ্গে পাঁচ জন বিদেশি ফুটবলার খেলাতে পারে। কিন্তু এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অংশগ্রহণকারী দলগুলো চার জনের বেশি বিদেশি ফুটবলার নথিভুক্ত করাতে পারবে না। এর মধ্যে এক জনকে এশীয় হতেই হবে।’’ ইগর বলেছেন, ‘‘এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি তাতে সুনীলের বিকল্প তুলে আনাই কঠিন। কারণ, ভারতীয় ফুটবলারেরা ক্লাবের হয়ে স্ট্রাইকার পোজিশনে খেলার সুযোগ পায় না। ফলে এ রকম কাউকে জাতীয় দলে স্ট্রাইকার হিসেবে খেলানো সম্ভব নয়।’’ ২০২২-এর বিশ্বকাপের মূলপর্বে ভারতের খেলার সম্ভাবনা শেষ। তবু ইগর আশাবাদী। বলেছেন, “২০২৬-এর বিশ্বকাপে ভারতের খেলার সম্ভাবনা উ়ড়িয়ে দিচ্ছি না। কারণ সেই বিশ্বকাপের মূলপর্বে ৪৮টা দল অংশ নেবে। এশিয়া থেকে আরও তিন বা চারটে দলের অন্তর্ভূক্তি হবে। হাতে এখনও চার বছর আছে। আমাদের লক্ষ্য এশিয়ান কাপে প্রথম আটদলের মধ্যে থেকে বিশ্বকাপের মূলপর্বে ঢোকার যোগ্যতা অর্জন করা।”