বুধবার, সেপ্টেম্বর 23, 2020
Home ফুটবল পদ্মশ্রী পেয়ে আবেগাপ্লুত ভারতীয় মহিলা ফুটবলার বেমবেম দেবী

পদ্মশ্রী পেয়ে আবেগাপ্লুত ভারতীয় মহিলা ফুটবলার বেমবেম দেবী

ঐনাম বেমবেম দেবীকে "ভারতীয় ফুটবলের মা দুর্গা" বলা যায়। তিনিই প্রথম ভারতীয় মহিলা ফুটবলার যিনি নাগরিক হিসেবে দেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ সম্মান পেতে চলেছেন।

ঐনাম বেমবেম দেবীকে “ভারতীয় ফুটবলের মা দুর্গা” বলা যায়। আর তিনিই আজ আবেগতাড়িত কারণ ভারত সরকার তাকে পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত করতে চলেছে। তিনিই প্রথম ভারতীয় মহিলা ফুটবলার যিনি নাগরিক হিসেবে দেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ সম্মান পেতে চলেছেন।

“আমি কলকাতা বিমানবন্দরে ছিলাম যখন ভারত সরকারের এক কর্তা ফোন করে আমায় এই সুখবরটি দেন। প্রথমে তিনি জিজ্ঞেস করেন আমি কী বেমবেম দেবী? এবং তারপরই তিনি জানান সরকার পদ্মশ্রী পুরস্কারের জন্য আমার নাম প্রস্তাব করেছে । আমি ঠিক বুঝে পাচ্ছিলাম না ওনাকে কি বলবো? কারণ এমন একটা সম্মান পাওয়ার খবর পেয়ে আমি আপ্লুত এবং বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলাম,” দ্য ব্রিজ’কে একান্ত সাক্ষাৎকারে জানান বেমবেম।

প্রথম ভারতীয় মহিলা ফুটবলার যিনি নাগরিক হিসেবে দেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ সম্মান পেতে চলেছেন। (Image: Indian Football)
প্রথম ভারতীয় মহিলা ফুটবলার যিনি নাগরিক হিসেবে দেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ সম্মান পেতে চলেছেন। (Image: Indian Football)

খবরটা জেনেই বেমবেম তার মাকে কথাটি সবার আগে জানান।”যদিও আমরা মা ঠিক বোঝেন না এই সম্মানটার অর্থ কি? কিন্তু আমার মাকেই আমি সব খবর সবার আগে জানাই। এরপর আমি এই খবরটা আমার দাদাদের এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের জানাই।”

এই সম্মান পাওয়ার সাথে সাথে তিনি বেশকিছু কিংবদন্তিদের সঙ্গে একাসনে বসলেন। বেমবেমের আগে যে ক্রীড়াবিদরা এই সম্মান পেয়েছেন তারা হলেন প্রয়াত গোষ্ঠ পাল, শৈলেন মান্না, চুনী গোস্বামী, পিকে ব্যানার্জি, ভাইচুং ভুটিয়া এবং ভারতের জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী। সুনীল এই পুরস্কার পেয়েছিলেন ২০১৯ সালে।

বেমবেমই একমাত্র ফুটবলার যার ভারতীয় ফুটবল দলের জার্সিতে ৮৫টি ম্যাচ খেলা হয়ে গেছে। (Image: Indian Football)
বেমবেমই একমাত্র ফুটবলার যার ভারতীয় ফুটবল দলের জার্সিতে ৮৫টি ম্যাচ খেলা হয়ে গেছে। (Image: Indian Football)

বেমবেমই একমাত্র ফুটবলার যার ভারতীয় ফুটবল দলের জার্সিতে ৮৫টি ম্যাচ খেলা হয়ে গেছে। তিনি মনে করেন এই পুরস্কার বহু ভারতীয় মহিলাকে ভবিষ্যতে ফুটবলে আসতে আরও উদ্বুদ্ধ করবে।” এই পুরস্কারের মূল্য আমার কাছে অনেক। যেকোনো ক্রীড়াবিদের কাছেই এই নাগরিক সম্মান খুব স্পেশাল। এটা আমার ২১ বছরে ফুটবল নিয়ে কঠোর অধ্যবসায়ের ফল। এরপর আমি আরো কঠোর পরিশ্রম করব যাতে মহিলা ফুটবল এদেশে আরও উন্নতি করে। আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই সর্বভারতীয় ফুটবল সংস্থা, মনিপুর অ্যাসোসিয়েশন এবং তাদের যারা আমায় সব সময় বিভিন্ন রকম ভাবে সাহায্য করে গেছেন। আমার মনে হয় এই সম্মান তরুণ ক্রীড়াবিদদের খেলার বিষয়ে আরো উদ্বুদ্ধ করবে।”

১৯৯৫ সালে মাত্র ১৫ বছর বয়সে বেমবেম দেবী ভারতীয় মহিলা দলে অভিষেক ঘটান এবং ২১ বছর সসম্মানে দেশের হয়ে খেলে ২০১৬ সালে অবসর নেন। ২০০৩ সাল থেকে তিনি ভারতীয় মহিলা দলের অধিনায়কত্ব করছেন এবং তার নেতৃত্বে ভারত তিনটি সাফ কাপ জেতে (২০১০, ২০১২,২০১৪)। এছাড়াও তার নেতৃত্বেই ভারত দুটি গোল্ড মেডেল পায় (২০১০,২০১৬)। দুর্দান্ত পারফর্মেন্সের জন্য বেমবেম দুবার এআইএফএফ’এর বর্ষসেরা মহিলা ফুটবলারও হয়েছেন (২০০১,২০১৩)।

বেমবেম মনে করেন ভারতীয় মহিলা ফুটবল লীগের পাশাপাশি, দেশের বিভিন্ন রাজ্যে মহিলা ফুটবল লীগ হওয়া উচিত।