শুক্রবার, নভেম্বর 27, 2020
Home ফুটবল কোয়েসের সঙ্গে বিচ্ছেদের প্রাথমিক বৈঠক সারা, মার্চে হয়তো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

কোয়েসের সঙ্গে বিচ্ছেদের প্রাথমিক বৈঠক সারা, মার্চে হয়তো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

কোয়েসের সঙ্গে মিউচুয়াল ডিভোর্সের পথে আরও এক ধাপ এগোল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

কোয়েসের সঙ্গে মিউচুয়াল ডিভোর্সের পথে আরও এক ধাপ এগোল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব কর্তৃপক্ষ। সোমবার ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের শীর্ষ কর্তা বেঙ্গালুরুতে প্রাথমিক পর্যায়ে বৈঠক করলেন। যদিও সেই শীর্ষ কর্তা বৈঠকের পর উপস্থিত সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিচ্ছেদ নিয়ে বিশেষ কোনও আলোচনা হয়নি। বরং চলতি আই লিগ কীভাবে জেতা যায় সেই নিয়েই কথা বেশি হয়েছে। আগামী রবিবার আই লিগের প্রথম ডার্বি যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে। মোহনবাগালের বিরুদ্ধে সেই চিরকালীন শত্রুতার ম্যাচ জয়ের প্রস্তুতিও আলোচনায় অন্যতম এজেন্ডা ছিল বলে জানিয়েছেন ইস্টবেঙ্গলের শীর্ষ কর্তা। এমনকী, পরের মরশুমে দল আরও শক্তিশালী কীভাবে হতে পারে সেই নিয়েও না কি কথা হয়েছে! কিন্তু কলকাতায় ক্লাব সূত্রের খবর, আগামী মার্চে কোয়েসের শীর্ষ কর্তারা কলকাতায় আসছেন। তখনই সম্পর্ক মধুর রেখে ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে বিচ্ছেদের বিষয়টা পাকা হওয়ার  আলোচনা হবে।

দলকে শক্তিশালী করার প্রস্তুতি নিয়েই তো যত গণ্ডোগোল স্পনসর আর ক্লাব কর্তাদের মধ্যে। সম্প্রতি লাল-হলুদ কোচ আলেজান্দ্রোর পরামর্শে ক্লাব কর্তারা নতুন তিন ফুটবলার নেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। স্পনসরের কাছে আবেদনপত্রও পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু ক্লাবকে সম্পূর্ণ অন্ধকারে রেখে কোয়েস কর্তারা নিজেদের উদ্যোগে প্রথমে আভাস থাপা, তারপর লালিরিন ডিকাকে সই করিয়ে নেন! সেই ঘটনাতেই ক্লাব ও স্পনসরের দূরত্ব আরও বেড়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ক্লাব কর্তা। সোমবার  কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর ক্লাবের শীর্ষ কর্তা এ-ও বলেছেন, “স্পনসরদের বলেছি, ভাল বিদেশি আনতে গিয়ে বাজেটের বাইরে গিয়ে বেশি টাকা লাগলে সেই খরচ বহন করতে রাজি ক্লাবও।” আজ বুধবার কল্যাণী স্টে়ডিয়ামে, আই লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ইস্টবেঙ্গলের সামনে শক্তিশালী গোকুলম এফসি। জিতে পুরো তিন পয়েন্ট না পেলে চ্যাম্পিয়নশিপের দৌড়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়বে লাল-হলুদ। তারপরের ম্যাচই ডার্বি!