রবিবার, নভেম্বর 29, 2020
Home ফুটবল ইস্টবেঙ্গলকে কথা দিয়েও মোহনবাগানের চাপে খেলা হল না সোনি নর্দের

ইস্টবেঙ্গলকে কথা দিয়েও মোহনবাগানের চাপে খেলা হল না সোনি নর্দের

ইস্টবেঙ্গলে খেলা প্রায় পাকা হওয়া সত্ত্বেও এই মরশুমে লাল-হলুদ জার্সি হয়তো পরা হচ্ছে না হাইতির তারকা স্ট্রাইকার সোনি নর্দের। তিনি যাচ্ছেন মালয়েশিয়ায় খেলতে। ইস্টবেঙ্গল কর্তারা প্রস্তাব দিয়েছিল মাসে ১৮ হাজার ডলারের। তার সঙ্গে ইনসেনটিভের প্রস্তাবও ছিল। ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের দাবি, ১৯ জানুয়ারি আই লিগের ডার্বির (ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান) আগেই কলকাতায় সোনির চলে আসা নিশ্চিত ছিল। কিন্তু শনিবার মাঝরাত থেকে জানাজানি হয়ে যায় যে সোনিকে নিচ্ছে ইস্টবেঙ্গল। তারপরই মোহনবাগান সমর্খক ও সদস্যদের তরফ থেকে সোনিকে বারবার চাপ দেওয়া হতে থাকে, তিনি যেন ইস্টবেঙ্গলে সই না করেন। তারপর আসরে নামেন দুবাইয়ে থাকা সোনির এক শুভানুধ্যায়ী। তার বোঝানোর পরই সোনি সিদ্ধান্ত নেন ইস্টবেঙ্গল নয়, মালয়েশিয়ার ক্লাবের হয়ে এই মরশুমে খেলবেন। ভারত থেকে পাঞ্জাব এফসি এবং গোকুলামও তাঁকে পাওয়ার জন্য অনেক দিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল। এর মধ্যেই লড়াইয়ে ঢুকে পড়ে ইস্টবেঙ্গল। সমর্থকদের সমর্থন নিজেদের দিকে নেওয়ার জন্য ঠিক করে সোনিকে যেভাবেই হোক দলে নিতে হবে। পাঞ্জাব প্রস্তাব দিয়েছিল মাসে ১০ হাজার ডলার। গোকুলাম বাড়িয়ে প্রস্তাব দিয়েছিল ১২ হাজার ডলার। ইস্টবেঙ্গল সেখানে প্রস্তাব দিয়েছে ১৮ হাজার ডলার। ভারতীয় টাকায় যাঁর মূল্য প্রায় ১৩ লক্ষ টাকা। সঙ্গে ইনসেনটিভ। ইস্টবেঙ্গল কর্তারা অবশ্য সোনির প্রত্যাখানের পর বিজ্ঞপ্তি দিয়েছেন যে সোনির সঙ্গে কোনওভাবে যোগাযোগ করা হয়নি। সেটা জেনে সোনি হেসে বলেছেন, “কর্তাদের সঙ্গে হোয়াটস অ্যাপে আমার সমস্ত কথোকথন রাখা আছে এখনও।”