রবিবার, নভেম্বর 29, 2020
Home ফুটবল শারীরিক শক্তিতে এগিয়ে আফ্রিকা, স্কিলে এগিয়ে স্প্যানিশরা

শারীরিক শক্তিতে এগিয়ে আফ্রিকা, স্কিলে এগিয়ে স্প্যানিশরা

কলকাতা ফুটবলে আফ্রিকানদের আনাগোনা অনেকদিনই। সম্প্রতি স্প্যানিশ ফুটবলারদের সংখ্যাও বেড়েছে। তাঁদের তুলনায় কোথায় পিছিয়ে বাঙালি ফুটবলাররা, বিশেষজ্ঞদের পর্যবেক্ষণ, শারীরিক সক্ষমতায় আফ্রিকানরা অনেক এগিয়ে। তেমনই স্কিল ও টেকনিকে স্প্যানিশরা।

চিমা ওকোরির দাপটে কলকাতা লিগে একসময় বিপক্ষ বাঙালি ডিফেন্ডারদের প্রাণ ওষ্ঠাগত হয়ে উঠেছিল। এখন কলকাতা ময়দানে অনেক চিমা। বাঙালিদের প্রাণ আরও ওষ্ঠাগত। বরাবরই কলকাতা ফুটবলে আফ্রিকানরা বাঙালিদের তুলনায় শারীরিক সক্ষমতার অ্যাডভান্টেজ পান। সেই ট্র‌্যাডিশন এখনও চলছে।

এখন হল কলকাতা ফুটবলে ভিড় বেড়েছে স্প্যানিশদেরও। দুই প্রধানের সঙ্গে যুক্ত ফিজিক্যাল ফিটনেস ট্রেনারদের মতে, শারীরিক গঠন ও সক্ষমতায় স্পেনের ফুটবলারদের সঙ্গে বাঙালিদের বিশেষ পার্থক্য না থাকলেও স্প্যানিশরা এগিয়ে স্কিল ও টেকনিকে। তবে আফ্রিকান ফুটবলারদের তুলনায় শারীরিক গঠনে তাঁরা পিছিয়ে। স্কিল ও টেকনিকে স্প্যানিশদের এগিয়ে থাকার কারণ ছোটবেলা থেকেই সর্বাধুনিক অ্যাকাডেমিতে অনুশীলনের সুযোগ এবং দক্ষ কোচেদের তত্ত্বাবধানে বেড়ে ওঠা। স্কিল ও টেকনিকের বিকাশ ঘটাতে যা অত্যন্ত সহায়ক। যার প্রভাব দেখা যায় ফার্স্ট টাচ এবং বল কন্ট্রোলে। স্কিলে স্প্যানিশ ফুটবলাররা পেছনে ফেলে দিচ্ছেন বাঙালি এবং আফ্রিকানদের।

গতিতে অবশ্য আফ্রিকানদের সঙ্গে পাল্লা দিতে সক্ষম বাঙালিরা। বিশেষজ্ঞদের মতে, ছোটবেলা থেকে খাদ্যের মানের সুবিধে পান স্প্যানিশরা। বাঙালিরা তো বটেই, আফ্রিকান ফুটবলাররাও এক্ষেত্রে অনেকটাই পিছিয়ে। খাদ্যের মানের ঘাটতি কমাতে বাঙালি ফুটবলারদের বিকল্প খাদ্যের (ফুচ সাপ্লিমেন্ট) সাহায্য নিতে হয়। বাঙালি ফুটবলাররা পিছিয়ে চিন্তাভাবনাতেও। বিশেষজ্ঞদের মতে, অদূর ভবিষ্যতে এই ঘাটতিগুলো মেটার আশা কম। যেমন বেশি বাঙালি ফুটবলারদের প্রাণ আরও ওষ্ঠাগত হওয়ার আশঙ্কা।