বৃহস্পতিবার, নভেম্বর 26, 2020
Home ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিততে হলে প্রয়োজন ধারাবাহিকতার, মানসিক দৃঢ়তার, মত ডায়না এডুলজির

বিশ্বকাপ জিততে হলে প্রয়োজন ধারাবাহিকতার, মানসিক দৃঢ়তার, মত ডায়না এডুলজির

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এডুলজির বকুনি খাওয়ায়ার পরেই ২০১৭ সালের বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অপরাজিত ১৭১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন কৌর যা ভারতের পক্ষে একদিনের বিশ্বকাপে করা সর্বোচ্চ রান । এখন দেখার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কৌরের ব্যাট ভারতকে ফাইনালে পৌঁছে দিতে পারেন কিনা।

অত্যাশ্চর্য্য ভাবে কঠিন পরিস্থিতিতে একের পর এক ম্যাচ জিতলেও একাধিক ম্যাচ অপেক্ষাকিত সহজ পরিস্থিতি থেকে হেরেছে হরমনপ্রীতের নেতৃতাধীন ভারতীয় দল। ধারাবাহিকতার এই অভাব মোটেই ভালোভাবে নিচ্ছেন না প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ডায়না এডুলজি। তিনি বলেছেন দলের মধ্যে এই সমস্যা কেন হচ্ছে তা দলকেই খুঁজে বের করতে হবে। ধারাবাহিকতা ব্যতিত বিশ্বকাপের  সেমি ফাইনাল অবদি যাওয়া যেতে পারে কিন্তু বিশ্বকাপ জেতা যায় না বলেই তাঁর মত।

২০১৭ সালের একদিনের বিশ্বকাপে ফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে হারার পর ২০১৮ সালের টি-২০ বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে হারতে হয়েছিল একই প্রতিপক্ষের কাছে। আবার ৪১ বলে ৫৫ রানের মত সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে না পেরে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে পরাজয় স্বীকার করতে হয় অস্ট্রেলিয়ার কাছে। প্রাক্তন অধিনায়িকার মতে যদিও  ২০১৮ সালের বিশ্বকাপের পর ২৪ ম্যাচের মধ্যে ১৪ ম্যাচে ভারতের জয় এসেছে , বাকি ম্যাচ গুলির অনেকটাই জিততে পারত ভারত।

তিনি আরো বলেন যে মহিলা ক্রিকেটারদের অভিযোগ করার কোনো জায়গাই নেই। তারা আগের থেকে অনেক বেশি পরিকাঠামো গত সুযোগ সুবিধা পাচ্ছেন কিন্তু তাতেও তারা আইসিসি ট্রফি জেতার মত মানসিকতা দেখাতে পারেছেন না । একি সঙ্গে কঠিন পরিস্থিতিতে চাপের মুখে ভেঙে পড়ার , ভারতীয় দলের প্রবণতায় বদল আনার কথাও বলেছেন, সর্বোচ্চ স্তরে খেলতে হলে মানসিক কাঠিন্যের উপর জোর দিয়েছেন তিনি।

ক্রিকেটের খুঁটিনাটি বিষয় যেমন রানিং বিটুইন দ্যা উইকেটের উপরেও জোর দিতে বলেছেন তিনি। হরমনপ্রিতের গুনমুগ্ধ এডুলজি মনে করেন যে দরকারে অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়ে তাঁর ব্যাটিং এ মন দেওয়া উচিত। এই বিশ্বকাপে চার ম্যাচে তিনি করেছেন ২৬ রান , এবং ত্রিদেশীয় সিরিজে তাঁর স্ট্রাইকরেট চলে গেছিল ১০০ এর নিচে। পরিসংখ্যানগত ভাবে দেখলে কৌরের অর্ধেক বেশি রান এসেছে তাঁর নিজের অধিনায়কত্বে -৩১.৩০ এর গড়ে ১২৫২ রান।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এডুলজির বকুনি খাওয়ায়ার পরেই ২০১৭ সালের বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অপরাজিত ১৭১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন কৌর যা ভারতের পক্ষে একদিনের বিশ্বকাপে করা সর্বোচ্চ রান । এখন দেখার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কৌরের ব্যাট ভারতকে ফাইনালে পৌঁছে দিতে পারেন কিনা।