শুক্রবার, নভেম্বর 27, 2020
Home ফুটবল দুর্দান্ত এসপাদা, কোলাডো। চেন্নাইকে হারিয়ে জয়ের সরণীতে ফিরল ইস্টবেঙ্গল

দুর্দান্ত এসপাদা, কোলাডো। চেন্নাইকে হারিয়ে জয়ের সরণীতে ফিরল ইস্টবেঙ্গল

পরপর তিন ম্যাচে হারের পরে অবশেষে জয়ে ফিরল ইস্টবেঙ্গল। গোটা ম্যাচে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখে গতবারের আই লিগ চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সিটি এফসিকে তাদের ঘরের মাঠে ২-০ গোলে হারাল লাল হলুদ ব্রিগেড।

পরপর তিন ম্যাচে হারের পরে অবশেষে জয়ে ফিরল ইস্টবেঙ্গল। গোটা ম্যাচে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখে গতবারের আই লিগ চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সিটি এফসিকে তাদের ঘরের মাঠে ২-০ গোলে হারাল লাল হলুদ ব্রিগেড। ইস্টবেঙ্গলের দুটি গোলই আসে দ্বিতীয়ার্ধে। গোল করেন মার্কোস এবং কোলাডো। যদিও কোলাডো প্রথমার্ধে একটি পেনাল্টি নষ্ট করেন। গোলের ব্যবধান আরও বাড়তে পারত যদি না ব্রেন্ডনের শট সাইড পোস্টে লেগে ফিরে না আসতো। আট ম্যাচেই প্রথম ইস্টবেঙ্গল কোন ম্যাচে গোল খেলো না, যা যথেষ্টই স্বস্তি দেবে লাল হলুদ সমর্থকদের।

ইস্টবেঙ্গলের দুটি গোলই আসে দ্বিতীয়ার্ধে (Image: I-League)
ইস্টবেঙ্গলের দুটি গোলই আসে দ্বিতীয়ার্ধে (Image: I-League)

ম্যাচের প্রথমার্ধেই ইস্টবেঙ্গল অন্তত চার গোলে এগিয়ে যেতে পারতো। কিন্তু ভাগ্যের ফেরে তা হয়নি, ১৪ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি পেলেও তা সরাসরি গোলকিপারের হাতে মারেন। এরপর ৩৪ মিনিটের মাথায় ব্রেন্ডন গোলকিপারকে একা পেয়েও একটি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন। এরপর ৩৬ মিনিটের মাথায় কোলাডা আবার একটি শট গোলপোস্টের উপর দিয়ে উড়িয়ে দেন। প্রথমার্ধে চেন্নাইয়ের হয়ে সুযোগ পেয়েও নষ্ট করেন কাটসুমি, সুহের পাশারাও।

দ্বিতীয়ার্ধে ব্রেন্ডনের পরিবর্তে অন্সুমানা ক্রোমা নামার পরে ফরওয়ার্ড লাইনে ইস্টবেঙ্গলের ধার আরো বাড়ে। এরপর ৬৮ মিনিটের মাথায় কোলাডার ঠিকানা লেখা মাইনাস থেকে গোল করে ইস্টবেঙ্গলকে এগিয়ে দেন মার্কস দে লা এসপাদা। এর খানিকক্ষণ পর আবার পেনাল্টি পায় ইস্টবেঙ্গল। এবার আর ভুল করেননি কোলাডো। এই ম্যাচ জয়ের ফলে লিগের লড়াইয়ে টিকে রইল ইস্টবেঙ্গল। বর্তমানে তাদের পয়েন্ট দাঁড়াল ৮ ম্যাচে ১১।