শুক্রবার, নভেম্বর 27, 2020
Home আটলেটিক্স কর্নাটকের গ্রামীণ দৌড়ে বোল্টের চেয়েও সময় ভাল করলেন শ্রীনিবাস!

কর্নাটকের গ্রামীণ দৌড়ে বোল্টের চেয়েও সময় ভাল করলেন শ্রীনিবাস!

উসেইন বোল্টকে টপকে গেলেন কর্নাটকের প্রত্যন্ত গ্রামের ছেলে শ্রীনিবাস গৌড়া! ২৮ বছরের শ্রীনিবাস নজিরবিহীন ঘটনা ঘটিয়েছেন। জোড়া মোষের সঙ্গে তিনি ১৪২.৫০ মিটার দৌড়লেন ১৩. ৬২ সেকেন্ডে।

যা ১০০ মিটারের হিসেব কষলে দাঁড়ায় ৯.৫৫ সেকেন্ড। বোল্টের ৯.৫৮ সেকেন্ডের বিশ্ব রেকর্ড তিনি ভেঙে দিয়েছেন। এখানেই শেষ নয়, কোনও অত্যাধুনিক ট্র্যাকে নয়, কাদা মাঠে দৌড়েছেন। একেবারে খালি পায়ে। স্থানীয় ভাষায় একে কাম্বালা রেস বলা হয়।

চিরাচরিতভাবে এই রেস জাল্লিকাট্টুর মতো ভয়ঙ্কর নয়। মোষের সঙ্গে দৌড়তে হবে, একেবারে কাদা মাঠে। এটাই সেখানকার প্রাচীন খেলা। রেস জিতে খুশিতে ডগমগ শ্রীনিবাস। তাঁর কথায়, ‘কাম্বালা আমার কাছে খুব ভালো খেলা। বহুবার খেলেছি। কিন্তু এত জোরে দৌড়য়নি। আমার মোষদুটো দারুণ দৌড়েছে। ওদের জন্য, আমাকে গতি বাড়াতে হয়েছে।’ শ্রীনিবাসের ভিডিয়ো গোটা বিশ্বে ভাইরাল। কেউই মন্তব্য করেছেন, ‘এখনই ওঁকে নিয়ে কেন্দ্রীয় ক্রীড়া দপ্তরের চিন্তা করা উচিত, অলিম্পিকের জন্য।’

কেউ মন্তব্য করেছেন, ‘সাইতে পাঠিয়ে দেওয়া উচিত। অত্যধুনিক ট্রেনিংয়ের জন্য।’ আবার অনেকে বোল্টের সঙ্গে শ্রীনিবাসের এই দৌড়কে বাড়াবাড়ি বলছেন। কারণ এই দৌড়ের টাইমিং কাউন্ট নিয়ে সন্দেহ আছে। এই কাম্বালা নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি। কয়েকবছর আগে প্রাণীদের নিয়ে এ রকম রেস কর্নাটক সরকার নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছিল। বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থরামাইয়া আবার তা চালু করেছেন। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে লাখ লাখ টাকার পুরস্কার রয়েছে এই কাম্বালা রেসে।